শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৩:৩৮ অপরাহ্ন

গরম পানি খাওয়া কি নিরাপদ গর্ভাবস্থায়

প্রতিনিধির / ১৫৫ বার
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২২
গরম পানি খাওয়া কি নিরাপদ গর্ভাবস্থায়
গরম পানি খাওয়া কি নিরাপদ গর্ভাবস্থায়

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, হবু মায়েদের শরীর আর্দ্র রাখা অত্যন্ত জরুরি। এ সময় বেশি পরিমাণে পানি এবং তরল পদার্থ মা ও শিশুর উভয়েরই সুরক্ষাকবচ হিসেবে কাজ করে। তবে হালকা গরম পানি এক্ষেত্রে কতটা কার্যকর কিংবা হবু মায়ের কোনো ক্ষতি করে কি না, তা নিয়ে অনেকেই দ্বিধাদ্বন্দ্বে ভোগেন।এ বিষয়ে ন্যাশনাল সেন্টার ফর বায়োটেকনোলজি ইনফরমেশানে প্রকাশিত একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে, অন্তঃসত্ত্বা মায়েদের ঈষদুষ্ণ পানি পানে শরীরে তেমন কোনো ক্ষতি হয়নি। তবে এর জন্য কিছু বিষয় মেনে চলতে হবে।

যেমন পানি কোনোভাবেই বেশি গরম করা যাবে না। খাওয়ার জন্য পানি হতে হবে হালকা গরম। খাওয়ার জন্য যে পানি হালকা গরম করবেন তা যেন অবশ্যই ফিল্টার করা পানি হয়। কেননা পানি ফিল্টার করা না হলে সেখানে ব্যাকটেরিয়া, জীবাণু, ক্ষতিকর সিসা থাকে যা হবু মা ও শিশুর ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে।

এ ছাড়া যেদিকে বিশেষ নজর রাখতে হবে তা হলো খাওয়ার জন্য একই পানি বার বার গরম করা যাবে না। হালকা গরম পানি একবারে বেশি পরিমাণে না খেয়ে অল্প পরিমাণে পান করার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে।বিশেষজ্ঞরা বলছে, হালকা গরম পানির পরিবর্তে যদি কেউ বেশি গরম পানি, দুধ বা চা খায় তবে মুখ, জিব পুড়ে যাওয়ার আশঙ্কার পাশাপাশি খাদ্যনালির কোষ ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে।প্রতিদিন অধিক গরম পানি, চা কিংবা দুধ খাওয়ার অভ্যাসে রেসপিরেটরি ট্র্যাক্টের ক্ষতিসহ এসোফ্যাগাসে ক্যানসার পর্যন্ত হতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

এসব বিষয়গুলো মেনে চলে হালকা গরম পানি খাওয়ার অভ্যাসে অন্তঃসত্ত্বা মা যেসব উপকারিতা পেতে পারে সেগুলো হলো মেটাবলিজম বাড়িয়ে ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকে, কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে মুক্তি দেয়, ব্লাড সার্কুলেশন বাড়ে, হজম শক্তি বাড়ে, বুকব্যথা এবং সর্দিকাশি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে না। প্রাকৃতিক উপায়ে শরীর পরিষ্কার করে বিষাক্ত টক্সিন বের করতেও ভালো কাজে আসে হালকা গরম পানি খাওয়ার অভ্যাসে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: