রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ০২:৩৪ পূর্বাহ্ন

বিশ্বকাপ খেলতে ফ্রান্সের হয়ে কাতারে যাওয়া হচ্ছে না পগবার

প্রতিনিধির / ১২২ বার
আপডেট : মঙ্গলবার, ১ নভেম্বর, ২০২২
বিশ্বকাপ খেলতে ফ্রান্সের হয়ে কাতারে যাওয়া হচ্ছে না পগবার
বিশ্বকাপ খেলতে ফ্রান্সের হয়ে কাতারে যাওয়া হচ্ছে না পগবার

গত জুলাইয়ে শঙ্কা জেগেছিল, পল পগবা কাতার বিশ্বকাপে খেলতে পারবেন কি না? প্রশ্নটা উঠে যখন লস অ্যাঞ্জেলেসে জুভেন্টাসের অনুশীলনে হাঁটুর চোটে পড়েছিলেন তিনি। শুরুতে চোট এতটা গুরুতর মনে না হলেও পরে জানা গেল, অস্ত্রোপচার লাগবে এবং তারপর অনেক দিন মাঠের বাইরে থাকতে হতে পারে তাকে।সেপ্টেম্বরে অস্ত্রোপচার করানোর পর কাল তার এজেন্ট নিশ্চিত করেছেন, বিশ্বকাপের আগে সময়মতো সেরে না ওঠায় ফ্রান্সের হয়ে কাতারে যাওয়া হচ্ছে না জুভেন্টাসের এই মিডফিল্ডারের। অর্থাৎ কাতার বিশ্বকাপে পগবাকে দেখা যাবে না। ২০ নভেম্বর কাতারে শুরু হবে বিশ্বকাপ।

ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সের জন্য এটা বড় দুঃসংবাদ, দরজায় কড়া নাড়ছে কাতার বিশ্বকাপ। এখনি তারা হারিয়ে ফেললো তাদের মধ্যমাঠের অন্যতম ভরসা বিশ্বকাপজয়ী মিডফিল্ডার পল পগবাকে।

পগবার এজেন্ট রাফায়েলা পিমেন্তা সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘তুরিনো ও পিটসবার্গে তার শারীরিক অবস্থা মূল্যায়নের পর জানাতে খুব কষ্ট হচ্ছে যে, অস্ত্রোপচার থেকে সুস্থ হয়ে উঠতে আরো সময় লাগবে পল পগবার। এ কারণে বিশ্বকাপের আগে জুভেন্টাসের স্কোয়াডে এবং কাতারে ফ্রান্স জাতীয় দলের সাথেও তিনি যোগ দিতে পারবেন না।’

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে গত জুলাইয়ে ফ্রি-তে জুভেন্টাসে যোগ দেয়ার পর এই মৌসুমে ইতালিয়ান ক্লাবটির হয়ে একটি ম্যাচও খেলেননি পগবা। জুভেন্টাসও তার চোট নিয়ে বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘পিটসবার্গের প্রফেসর ভোলকার মুশাল তার হাঁটু দেখার পর এবং রেডিওলজিক্যাল পরীক্ষায় এতটুকু বোঝা গেছে, পগবাকে সুস্থ হয়ে ওঠার প্রক্রিয়া চালিয়ে যেতে হবে।’সংবাদ সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, হাঁটুর চোটে পড়ার পর পগবা শুরুতে অস্ত্রোপচার করাতে চাননি। কিন্তু গত মাসে অনুশীলনে ফেরার পর সিদ্ধান্ত পাল্টে অস্ত্রোপচার করান। কাতার বিশ্বকাপে পগবাকে না পাওয়া ফ্রান্সের জন্য বড় ধাক্কা।

গত বিশ্বকাপ ফাইনালে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে গোল করেছিলেন পগবা। ফ্রান্সের হয়ে এখন পর্যন্ত ৯১ ম্যাচ খেলেছেন পগবা, গোল করেছেন ১১টি। এর আগে চোটের কারণে ফ্রান্সের ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার এনগোলো কান্তেও ছিটকে পড়েন কাতার বিশ্বকাপ থেকে।বিশ্ব সেরার মুকুট ধরে রাখার মিশনে ‘ডি’ গ্রুপে খেলবে ফ্রান্স। তাদের তিন প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া, ডেনমার্ক ও তিউনিসিয়া। আগামী ২৩ নভেম্বর নিজেদের প্রথম ম্যাচে দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: